প্রেমিকের বিয়ের খবর শুনে তার ওপর অভিমান করে সুমাইয়া নামে ৭ম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। পরে ওই ছাত্রীর বিছানার নিচ থেকে একটি সুইসাইড নোটও উদ্ধার করা হয়। ঘটনাটি ঘটেছে পাবনা জেলার সাঁথিয়া উপজেলাধীন কাশিনাথপুর ইউনিয়নে। শুক্রবার রাতে ইউনিয়নের চরকলাগাছী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

মৃত সুমাইয়ার মা জীবন্নাহার বলেন, ঘটনার দিন রাত আটটার দিকে আমার মেয়ে আমাকে তার কানের দুল আনতে পাশের বাড়িতে পাঠালে আমি সেখানে যাই দুল আনতে। পরে বাড়িতে এসে দেখি আমার মেয়ে ঘরের আড়ার সঙ্গে ফাঁস লাগানো অবস্থায় আছে। কথাগুলো বলতে বলতে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন তিনি। কান্না জড়িত কণ্ঠে বলেন, আমার মেয়ের আত্মহত্যার জন্য আ. রাজ্জাকই দায়ী। আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাই।

এ ঘটনায় শনিবার (২ অক্টোবর) বিকেলে সুমাইয়ার মা জীবন্নাহার বাদী হয়ে আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ এনে সাঁথিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

সাঁথিয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসিফ মােহাম্মদ সিদ্দিকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে গণমাধ্যমকে বলেছেন, নিহতের মহদেহ ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় মেয়ের মা বাদী হয়ে অভিযুক্ত আ. রাজ্জাকের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেছেন। আসামি আটকের চেষ্টা চলছে। সুইসাইড নোট উদ্ধার করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *